আজ মঙ্গলবার, ৭ই জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১, ২১শে মে ২০২৪

‘স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে আমাদের করণীয়’ শীর্ষক মতবিনিময়

মেহেদি হাসান

হাতে একটি স্মার্টফোন আর পরনে দামি পোশাক থাকলেই স্মার্ট নাগরিক বলা যাবে, এমনটা নয়। শিক্ষিত হয়েও যিনি যেখানে-সেখানে ময়লা আবর্জনা ফেলে দেন, যিনি উদ্ভাবনী চিন্তা করেন না তাকে স্মার্ট নাগরিক বলা যাবে না। স্মার্ট নাগরিক হবে একজন জ্ঞানভিত্তিক দক্ষ মানুষ।

রোববার জেলা প্রশাসকের সম্মেলন কক্ষে ‘স্মার্ট বাংলাদেশ বিনির্মাণে আমাদের করণীয়’ শীর্ষক এক মতবিনিময় সভায় এমন কথা বলেন আলোচকগণ।

তারা আরো বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে যখন ডিজিটাল বাংলাদেশের রূপরেখা ঘোষণা করা হয়েছিল তখন আমরা অনেকেই হেসেছিলাম, তুচ্ছ-তাচ্ছিল্য করেছিলাম। কিন্তু সেটি আজ বাস্তব। তথ্যপ্রযুক্তির ব্যাপক প্রসার ঘটায় আজ আমরা ডিজিটালি সব কাজ করতে পারছি। এতে সময় কমেছে, হয়রানি ও দুর্নীতি বন্ধ হয়েছে। সরকারের ক্রয় কার্যক্রমে ই-টেন্ডারিংয়ের কারণে টেন্ডারবাজি বন্ধ হয়েছে, কাজে স্বচ্ছতা এসেছে।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা প্রশাসক এ কে এম গালিভ খাঁন বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে বাংলাদেশ স্যাটেলাইট ক্লাবের সদস্য হয়েছে, ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের কারণে আমাদের সকল কাজ সহজ হয়ে গেছে। মানুষ ঘরে বসেই তার কাঙ্ক্ষিত সেবাটা পাচ্ছে। তিনি বলেন, ডিজিটাল বাংলাদেশ গড়া যেমন চ্যালেঞ্জ ছিল তেমনি স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ার ক্ষেত্রেও চ্যালেঞ্জ আছে। কিন্তু সেই চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা করে আমরা সবার আগে এই চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলাকে স্মার্ট জেলা হিসেবে গড়ে তুলব। তিনি বলেন , মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ২০৪১ সালের মধ্যে জ্ঞানভিত্তিক ক্ষুধা ও দারিদ্র্যমুক্ত একটি সুখী সমৃদ্ধ বাংলাদেশ তথা স্মার্ট বাংলাদেশের যে প্রয়াস চালিয়ে যাচ্ছেন আমরা সবাই মিলে একসঙ্গে তা বাস্তবায়ন করব। সেজন্য আমাদের নতুন প্রজন্মকে স্মার্ট নাগরিক হিসেবে গড়ে তুলতে হবে। তারা যেন স্মার্ট নাগরিক হিসেবে স্মার্ট সমাজ ব্যবস্থা গড়তে পারে এবং স্মার্ট অর্থনীতির দেশ হিসেবে আমাদের প্রিয় মাতৃভূমি এই বাংলাদেশকে স্মার্ট বাংলাদেশ হিসেবে গড়ে তুলতে পারে।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আহমেদ মাহবুব-উল-ইসলামের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মতবিনিময় সভায় আলোচনায় আরো অংশ নেন ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেলা হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. মাসুদ পারভেজ, সিভিল সার্জন ডা. এস এম মাহমুদুর রশিদ, অতিরিক্ত জেলা ম্যাজিস্ট্রেট আসিফ আহমেদ। ভিডিও চিত্রের মাধ্যমে মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক আনিছুর রহমান।

অন্যদের মধ্যে আলোচনায় অংশ নেন বীর মুক্তিযোদ্ধা অ্যাডভোকেট আব্দুস সামাদ, গোমস্তাপুর উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান হুমায়ুন রেজা, ভোলাহাট উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান রাব্বুল হোসেন, সদর উপজেলা নির্বাহী অফিসার রওশন আলী।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা প্রশাসন ও জেলা তথ্য অফিস আয়োজিত মতবিনিময় সভায় জনপ্রতিনিধি, সরকারি কর্মকর্তা, শিক্ষকসহ বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার প্রতিনিধিরা অংশগ্রহণ করেন। এসময় জেলা তথ্য অফিসার ওয়াহিদুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন।

মন্তব্য সমুহ
০ টি মন্তব্য
মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন
এই শ্রেনির আরো সংবাদ

ফিচার নিউজ