আজ সোমবার, ৪ঠা মাঘ ১৪২৮, ১৭ই জানুয়ারী ২০২২

চাঁপাইনবাবগঞ্জ টিটিসি’র অধ্যক্ষের বিরুদ্ধে যৌন হয়রানির অভিযোগ

মেহেদি হাসান

 নিশ্চয় তুমি ভালো মেয়ে মানুষ। জিন্সের প্যান্ট পরলেই কেউ খারাপ হয় না। একটা ছবি দিলে তোমাকে দেখে চোখ জুড়াতাম। একটা ছবি কেন দিলানা গো?; বউ নাই কে দিবে খাবার।’ এক নারী প্রশিক্ষককে ফেসবুক মেসেজে এমন সব কুরুচিপূর্ণ ইঙ্গিত করেছেন চাঁপাই নবাবগঞ্জ কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের অধ্যক্ষ জয়নুল আবেদিন।


চাকরি স্থায়ীকরণসহ নানা প্রলোভন দিয়ে নারী প্রশিক্ষককে যৌন হয়রানি করা হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন। এ প্রতিষ্ঠানে অধ্যক্ষ হিসেবে যোগদানের পর থেকেই তার বিরুদ্ধে আসতে থাকে নানা অভিযোগ। এই অধ্যক্ষের সঙ্গে অনিয়মে জড়িত শিফট ইনচার্জ জাকির হোসেন ও ট্রেড ইনচার্জ খলিল রহমান নামে দুই প্রশিক্ষক। সম্প্রতি জনশক্তি কর্মসংস্থান ও প্রশিক্ষণ ব্যুরোর মহাপরিচালকের কাছে যৌন হয়রানিসহ বিভিন্ন অনিয়ম নিয়ে একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন ওই নারী প্রশিক্ষক।


অভিযোগের কপি, ফেসবুক মেসেজের স্ক্রিনশট ও ভুক্তভোগীর ভিডিও বক্তব্য চাঁপাই নিউজ ডটকম এর হাতে রয়েছে। অভিযোগ আছে, প্রশিক্ষকদের চাকরি স্থায়ীকরণ ও সরকারি সুযোগ-সুবিধা দেয়ার কথা বলে করেছেন অর্থ আদায়। বিজ্ঞপ্তি ছাড়াই অনৈতিকভাবে নেয়া হয়েছে প্রশিক্ষক। যারা বিরোধিতা করেছেন চাকরিচ্যুতির ভয়সহ নানাভাবে হয়রানির শিকার হয়েছেন তারা। নারী প্রশিক্ষককে যৌন হয়রানির বিষয়টি সব মহলে জানাজানি হওয়ার পর মঙ্গলবার বিকেলে জরুরি সভা ডেকেছেন অধ্যক্ষ। সভায় অভিযুক্ত নারী ও একজন শিক্ষককে ভিডিওবার্তা সহ বিভিন্ন অভিযোগ সরিয়ে নেওয়ার জন্য বলা হয়। অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাঁপাই নবাবগঞ্জ কারিগরি প্রশিক্ষণ কেন্দ্রের প্রশিক্ষক জয়নুল আবেদিনের সঙ্গে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে অভিযোগটি শোনার পর ক্লাসে আছি- এ বিষয়ে পরে কথা বলবো বলে সংযোগটি বিচ্ছিন্ন করে দেন। পরে বিকাল চারটা পর্যন্ত তার সঙ্গে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও  তাকে  পাওযা যায়নি।

 

মন্তব্য সমুহ
০ টি মন্তব্য
মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন
এই শ্রেনির আরো সংবাদ

ফিচার নিউজ