আজ সোমবার, ১১ই শ্রাবণ ১৪২৮, ২৬শে জুলাই ২০২১

চাঁপাইনবাবগঞ্জে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ৪৪০টি ঈদগাহে হবে ঈদ জামায়াত

বুধবার পবিত্র ঈদুল আজহা। করোনা পরিস্থিতিতে সারাদেশে যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি অনুসরণ করে এবারেও  হবে পবিত্র ঈদুল আজহা।

মুসলমানদের এই অন্যতম প্রধান ধর্মীয় উৎসব বাঙালি সমাজে কোরবানির ঈদ নামেও পরিচিত। তবে এবারের ঈদেও বাড়তি কোনো আনন্দ নেই বৈশ্বিক মহামারি করোনা ভাইরাসের কারণে। তাই ঈদুল আজহা তেমন জাঁকজমক ও আড়ম্বরের সঙ্গে পালিত হতে পারছে না। ঈদুল ফিতরও কেটেছে একরকম উৎসবহীন পরিবেশে।

চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলা ইসলামিক ফাউন্ডেশনের উপ-পরিচালক আবুল কালাম    ঈদগাহে নামাজ আদায়ের নির্দেশনা থাকলেও করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদের জামায়ামত অনুষ্ঠিত হবে। চাঁপাইনবাবগঞ্জ জেলায় এবার ৪৪০টি ঈদগাহে অনুষ্ঠিত হবে ঈদের জামায়াত। তার মধ্যে প্রধান জামায়াত অনুষ্ঠিত হবে সকাল ৮টায় চাঁপাইনবাবগঞ্জ পুরাতন স্টেডিয়ামে। স্বাস্থ্যবিধি মানার কারণে অনেক ঈদগাহে একাধিক জামায়াত অনুষ্ঠত হবে বলে তিনি জানান।

করোনা মোকাবিলায় ও সংক্রমণ বিস্তার রোধে ঈদুল ফিতরের মতো এই ঈদেও সরকারের নির্দেশনায় শারীরিক দূরত্ব বজায় রেখে ও স্বাস্থ্যবিধি মেনে ঈদের জামাত অনুষ্ঠিত হবে। ধর্ম মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে ঈদের জামাত শেষে কোলাকোলি এবং হাত মেলানো থেকে বিরত থাকার অনুরোধ জানানো হয়েছে। বতর্মান করোনা পরিস্থিতি বিবেচনায় ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের ১২ জুলাই জারীকৃত বিজ্ঞপ্তি অনুসরণপূর্বক যথাযথ স্বাস্থ্যবিধি মেনে পবিত্র ঈদুল আযহার নামাজ আদায়ের জন্য মসজিদের খতিব-ইমাম, ধর্মপ্রাণ মুসল্লী ও সংশি¬ষ্ট সকলকে অনুরোধ করা হয়েছে।

যথাযথ ধর্মীয় মর্যদা ও ভাবগাম্ভীর্যের মধ্যদিয়ে রাজধানীসহ সারাদেশে মুসলিম সম্প্রদায় ঈদুল আজহা উদযাপন করবে। মহান আল্লাহর অপার অনুগ্রহ লাভের আশায় ঈদুল আজহার জামাত শেষে ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা সামর্থ অনুয়ায়ি পশু কোরবানি করবেন। কুরবানিকৃত পশুর রক্ত বা বর্জ্য পদার্থ দ্বারা যাতে পরিবেশ দুর্গন্ধময় না হয় সে বিষয়ে খেয়াল রাখার জন্য সকলের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছে।

উল্লে¬খ্য, প্রায় চার হাজার বছর আগে আল্লাহ পাকের সন্তুষ্টি লাভের জন্য হজরত ইব্রাহিম (আ.) নিজ পুত্র হজরত ইসমাইলকে (আ.) কোরবানি করার উদ্যোগ নিয়েছিলেন। কিন্তু পরম করুণাময়ের অপার কুদরতে হজরত ইসমাইল (আ.)-এর পরিবর্তে একটি দুম্বা কোরবানি হয়ে যায়। হজরত ইব্র্রাহিম (আ.)-এর ত্যাগের মহিমার কথা স্মরণ করে বিশ্বব্যাপী মুসলিম সম্প্রদায় জিলহজ মাসের ১০ তারিখে আল্লাহ পাকের অনুগ্রহ লাভের আশায় পশু কোরবানি করে থাকেন।

মন্তব্য সমুহ
০ টি মন্তব্য
মন্তব্য করতে লগইন করুন অথবা নিবন্ধন করুন
এই শ্রেনির আরো সংবাদ

ফিচার নিউজ